1. munnanews@gmail.com : Mozammel Hossain Munna : Mozammel Hossain Munna
  2. badal.satvnews@gmail.com : Badal Saha : Badal Saha
  3. jmmasud24@gmail.com : Mozammel Hossain Munna : Mozammel Hossain Munna
গোপালগঞ্জ বশেমুরবিপ্রবি-তে এবার স্যানেটারী ফিটিংস চুরি! | Dainik Mohona
সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০১:৫৬ অপরাহ্ন
নোটিশ :
দৈনিক মোহনা পত্রিকার অনলাইন ভার্সনে আপনাদের স্বাগতম। করোনা ভাইরাস রোধে নিয়মিত সাবান দিয়ে হাত পরিষ্কার রাখুন, বাইরে গেলে মাস্ক ব্যবহার করুন। ধন্যবাদ।
শিরোনাম :
গোপালগঞ্জ বশেমুরবিপ্রবি-তে এবার স্যানেটারী ফিটিংস চুরি! ত্রান বিতরণসহ বহুমূখী জনকল্যানমূলক কার্যক্রমে যশোর সেনানিবাস গোপালগঞ্জে অপহরন করে মুক্তিপন দাবী ; চার সন্ত্রাসী গ্রেফতার গোপালগঞ্জের বিভিন্ন ইউনিয়নে মাছের পোনা অবমুক্ত করোনা মোকাবেলায় সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে মাঠে রয়েছে সেনাবাহিনী। গোপালগঞ্জে মাকে হত্যা করে আগুনে পুড়িয়ে লাশ গুম করার দায়ে ছেলে গ্রেফতার টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে ইউজিসি’র শ্রদ্ধা এম বি সাইফ (বি মোল্লা) দ্বিতীয় মেয়াদে ঢাকা বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থার  সাধারন সম্পাদক হওয়ায় গোপালগঞ্জে মিলাদ মfহফিল অনুষ্ঠিত ব্যবসায়ী মংগল সরদার হত্যাকারীদের দ্রুত বিচারের দাবীতে মানববন্ধন গোপালগঞ্জ ৫টি সংবাদিক সংগঠনকে কম্পিউটার উপহার দিলেন জেলা প্রশাসক

গোপালগঞ্জ বশেমুরবিপ্রবি-তে এবার স্যানেটারী ফিটিংস চুরি!

  • ..............প্রকাশিত : সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ০ জন সংবাদটি পড়েছেন।

স্টাফ রিপোর্টার।।

গোপালগঞ্জ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে(বশেমুরবিপ্রবি) কম্পিউটার চুরির ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতে আবারো চুরির ঘটনা ঘটেছে। তবে এবার কম্পিউটার নয়, বিশ্ববিদ্যালয়ের অফিসার্স কোয়ার্টার থেকে স্যানিটারি ফিটিংস চুরির ঘটনা ঘটেছে।চুরি যাওয়া মালা-মালের মূল্য লক্ষাধিক টাকা বলে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন জানিয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের এস্টেট অফিসার সৈয়দ আনিসুল সাদেক চুরির বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেছেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে ভবনের ছাদের দরজা দিয়ে চোর ভিতরে প্রবেশ করেছে। দরজার কিছু অংশ ভাঙা দেখা গেছে। পরে ফ্লাট গুলোর তালা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করে স্যানেটারী ফিটিংস গুলো চুরি করে নিয়ে যায়।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রকৌশলী এস এম এস্কান্দার আলী জানান, নির্মাণকাজ সম্পন্ন করার পর ভবনটি এস্টেট বিভাগের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয় রেজিস্টার প্রফেসর ড. নূরউদ্দিন আহমেদ জানান, সম্প্রতি বিষয়টি আমাদের নজরে আসে। এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রকৌশলী এস এম এস্কান্দার আলীকে প্রধান করে চার সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। গতকাল রোববার থেকে কমিটি তাদের কার্যক্রম শুরু করেছেন। তিনি আরো জানান, এখনো ক্ষতির পরিমান নিরুপন করা হয়নি। তবে, ধারণা করা হচ্ছে লক্ষাধিক টাকার মালামাল চুরি গেছে।

প্রসঙ্গত, এর আগে ঈদুল আজহার ছুটিতে বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় লাইব্রেরি থেকে ৪৯টি কম্পিউটার চুরি হয়েছিল। এছাড়া সম্প্রতি ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগ থেকে দুটো কম্পিউটার চুরি যায়।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2020
Design & Development By JM IT SOLUTION