1. munnanews@gmail.com : Mozammel Hossain Munna : Mozammel Hossain Munna
  2. badal.satvnews@gmail.com : Badal Saha : Badal Saha
  3. jmmasud24@gmail.com : Mozammel Hossain Munna : Mozammel Hossain Munna
কোটালীপাড়ায় মৎস্য ও সবজি চাষীদের হাহাকার ! | Dainik Mohona
বৃহস্পতিবার, ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৪:৩৪ অপরাহ্ন
নোটিশ :
দৈনিক মোহনা পত্রিকার অনলাইন ভার্সনে আপনাদের স্বাগতম। করোনা ভাইরাস রোধে নিয়মিত সাবান দিয়ে হাত পরিষ্কার রাখুন, বাইরে গেলে মাস্ক ব্যবহার করুন। ধন্যবাদ।
শিরোনাম :
বাংলাদেশ সেনাবাহিনী কর্তৃক বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান কোটালীপাড়ায় মৎস্য ও সবজি চাষীদের হাহাকার ! বশেমুরবিপ্রবি-তে কর্মচারী সমিতির কর্মবিরতি ও অবস্থান  গোপালগঞ্জে মধুমতি নদীতে কলেজ ছাত্র নিখোঁজ ডেঙ্গুর হাত থেকে রক্ষা করতে পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা অভিযান মুকসুদপুরে সেনাবাহিনীর উদ্যোগে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান কাশিয়ানীতে মধুমতি নদীর কালনা ঘাট এলাকায় ইঞ্জিন চালিত নৌকা থেকে পড়ে যাওয়া পুলিশ সদস্যের লাশ উদ্ধার। সন্তান এখনো নিখোঁজ যশোর সেনানিবাসের জনসচেতনতামূলক কার্যক্রম অব্যাহত মধুমতি নদীতে নিখোঁজ বাবা-ছেলেকে উদ্ধারে কাজ চালাচ্ছে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরী দল

কোটালীপাড়ায় মৎস্য ও সবজি চাষীদের হাহাকার !

  • ..............প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ২ জন সংবাদটি পড়েছেন।

মোহনা রিপোর্ট।।
গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় হাহাকার চলছে মৎস্য ও সবজি চাষীদের মধ্যে। এ উপজেলায় প্রায় ৩সহস্রাধিক    মাছের ঘের বন্যা ও ভারী বর্ষনে তলিয়ে গেছে। ভেসে গেছে ঘেরের সমস্ত মাছ। নষ্ট হয়ে গেছে ঘের পাড়ে লাগানো সবজি ক্ষেত। ধার দেনা করে ঘেরে মাছ ছেড়ে বিক্রির আগ মূহুর্তে সেই মাছ ভেসে যাওয়ায় এবং সবজি ক্ষেত নষ্ট হয়ে যাওয়ায় এ সব মৎস্য ও সবজি চাষীরা এখন দিশেহারা হয়ে পড়েছেন। কিভাবে ধারের টাকা শোধ করবে তা ভেবে তাদের দিন কাটছে।
বন্যা ও ভারী বর্ষনে এই উপজেলায় মাছ ও সবজিতে প্রায় ৩৬ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে স্থানীয় মৎস্য ও কৃষি অফিস সূত্রে জানাগেছে ।
কলাবাড়ি ইউনিয়নেই ভেসে গেছে প্রায় সহস্রাধিক ঘেরের মাছ। নিন্ম জলাভুমি বেষ্টিত এ ইউনিয়নের কুমুরিয়া গ্রামে প্রায় ৩শতাধিক মাছের ঘের পানিতে ডুবে গেছে। এই গ্রামের অধিকাংশ জনগনেরই আয়ের উৎস মাছ ও সবজি। মাছ ও মাছের ঘেরপাড় সবজি ফলিয়ে তা বিক্রি করে তাদের সংসার চলে। ঘেরপাড় পানিতে তালিয়ে যাওয়ায় এ সব সবজিও নষ্ট হয়ে গেছে। যার ফলে এসব চাষিরা সর্বশান্ত হয়ে পড়েছেন। ঘুরে দাড়াবার জন্য এ সকল চাষিরা ব্যাংক ঋণ মওকুফসহ নতুন করে  সহজ শর্তে ব্যাংক ঋণ এবং সরকারের সহযোগিতা চেয়েছেন।
কুমুরিয়া গ্রামের বিনয় মন্ডল বলেন, আমি জমি লিজ নিয়ে বেশ বড়সড় আমি একটি মাছের ঘের করেছিলাম। গত দ’ুবছর ধরে এই ঘেরে মাছ চাষ ও ঘেরপাড়ে সবজি চাষ করছি। এই মাছ ও সবজি বিক্রি করে আমার সংসার চলে। এ বছর মাছ ও সবজি চাষ করতে আমার ৩০ লক্ষ টাকা খরচ হয়েছে। ধার দেনা করে এ বছর মাছ ও সবজি চাষ করেছি। কিন্তু, বন্যা ও ভারী বৃষ্টিতে মাছের ঘের ডুবে যাওয়ায় সমস্ত মাছ ভেসে গেছে । ঘের পাড়ের সমস্ত সবজি গাছ নষ্ট হয়ে গেছে। আমি এখন কিভাবে সংসার চালাবো ও ধারের টাকা শোধ করবো ? সরকার যদি আমাদের নতুন করে সহজ শর্তে ব্যাংক ঋণ দেয় ও সার্বিক সহযোগিতা করে তাহলেই আমরা বেঁচে থাকতে পারবো।
কলাবাড়ি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাইকেল ওঝা বলেন, আমার ইউনিয়নে প্রায় সহস্রাধিক  ছোট বড় মাছের ঘের পানিতে ডুবে গেছে। ভেসে গেছে এ সকল ঘেরে সমস্ত মাছ। নষ্ট হয়ে গেছে ঘের পাড়ের সবজি ক্ষেত। এর মধ্যে কুমুরিয়া গ্রামে জনগনের সবচেয়ে বেশী ক্ষতি হয়েছে । এই গ্রামের প্রায় ৩শত পরিবারে ঘেরে মাছ ভেসে গেছে। অধিকাংশ ঘের মালিকই ব্যাংক ঋণ ও ধার দেনা করে মাছ ও সবজির চাষ করেছেন। সরকার যদি এদের সহযোগিতা না করে তা হলে ক্ষতিগ্রস্থ এসব জনগনের পথে বসতে হবে।
উপজেলা সিনিয়র মৎস্য অফিসার প্রশান্ত কুমার সরকার বলেন, এ উপজেলায় প্রায় ৩ সহস্রাধিক মাছের ঘের বন্যা ও ভারী বর্ষণের ফলে ডুবে গেছে। অধিকাংশ ঘেরে মাছ ভেসে গেছে। এতে প্রাথমিক ভাবে আমাদের হিসেব মতে ৩০ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে।
উপজেলা কৃষি অফিসার নিটুল রায় বলেন, বন্যা ও ভারী বর্ষনে আমাদের উপজেলায় প্রায় ৬ কোটি টাকার সবজি নষ্ট হয়েগেছে ।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার এস এম মাহফুজুর রহমান বলেন, মাছের ঘের গুলো ভেসে যাওয়ায় মৎস্য ও সবজি চাষীদের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্থ চাষীদের সরকারী ভাবে সহযোগীতা করার জন্য আমরা বিভিন্ন ধরনের পদক্ষেপ গ্রহন করেছি।

 

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2020
Design & Development By JM IT SOLUTION